Header Ads

নকল পুলিশ সেজে মেয়েটি যা করেছিল , চমকে উঠেছেন খোদ পুলিশ কর্তারা






পুলিশ সেজে চাকরি দেওয়ার নাম করে আর্থিক প্রতারণার ও টাকা তোলার অভিযোগে গ্রেফতার ভুয়ো মহিলা সাব ইন্সপেক্টর। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট থানার ময়লাখোলা এলাকায়। 
ধৃত অনিমা সরদার ভুয়ো মহিলা পুলিশ সাব ইন্সপেক্টর এর পরিচয় দিয়ে সেও তার সঙ্গীরা বিভিন্ন এলাকা থেকে তোলা আদায় এবং পুলিশে চাকরি দেওয়ার নাম করে টাকা তুলছিল বলে অভিযোগ। 
পুলিশ গোপন সুত্রে খবর পেয়ে শনিবার অনিমা কে তার নিজের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে বসিরহাট থানার পুলিশ। 
পুলিশ সুত্রে খবর, অনিমা সরদার গত ১ বছর ধরে পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর এর পরিচয় দিয়ে ঘুরে বেড়াত , এমনকি একটি ইন্ডিকা গাড়িতে পুলিশের স্টিকার লাগিয়ে ঘুরত সে , এতটাই আত্ববীশ্বাসের সাথে সে ঘুরে বেড়াত বা মানুষের সাথে কথা বলত কেউই সন্দেহ করত না, এমনকি খাকি পোষাক , মাথায় টুপি , কোমরে বেল্ট , একটি খেলনা পিস্তল ও অমিনার সাথে থাকত । 
এই ভাবেই অভিযুক্ত অনিমা বিভিন্ন যুবককে চাকরি দেওয়ার নাম করে টাকা নিত এবং তোলা আদায় করত। ধৃত কখনও হাড়োয়া থানায় বা কখনও মিনাখাঁ থানায় তার পোস্টিং আছে বলে পরিচয় দিত। অভিযুক্ত যখন চারচাকা গাড়ি নিয়ে ঘুরে বেড়াত তখন তার সাথে আরো দু তিন জন যুবক থাকত। 
পুলিশ কাছে বেস কিছুদিন হল অনিমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ পেয়েছে , শনিবার অভিযুক্ত অনিমা কে তার বাড়ি ময়লাখোলা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃত অনিমার বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বেস কিছু পুলিশের পোশাক , টুপি , লাঠি , ও একটি খেলনা পিস্তল উদ্ধার করেছে,
পুলিশ অভিযুক্ত অনিমার স্বামী- বীধান বাউরীকে আটক করে জিঙ্গাসাবাদ করছে ৷ অনীমার সাথে এই কাজে জারা যুক্ত আছে তাদেরকেও খোজ করছে পুলিশ। পাশাপাশি অভিযুক্তর ব্যাবহার করা গাড়িটির খোজ করছে পুলিশ। ধৃত অনিমা সরদার কে রবিবার বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হবে।

No comments