Header Ads

এক পরীক্ষায় দু রকম প্রশ্ন পত্রের জটিলতায় স্হগিত হল পরীক্ষা




স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের  সমন্বয়ের অভাবে এক পরীক্ষায় দু রকম প্রশ্ন পত্রের জটিলতায় স্হগিত হল চতুর্থ শ্রেণীর পরীক্ষা।ঘটনাটি ঘটেছে সোনারপুর হরিনাভি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় ক্ষিপ্ত আভিভাবকরা।

সোনারপুরের হরিনাভি বালিকা শিক্ষালয়, প্রাথমিক বিভাগে বৃহস্পতিবার সকালে সময় মতই ১০৮ জন চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রছাত্রী এসে হাজির হয়,স্কুলের তিনটি ঘরে বসে সবাই, ক্লাসে বসে কয়েক জন প্রস্নপত্র দিয়েছে এমন সময় প্রধান শিক্ষক ক্লাসরুমে প্রশ্নপত্র দিতে শুরুকরেন, পাশের ঘরে অঙ্কের শিক্ষক গৌতম চক্রবর্তীও প্রশ্নপত্র দিতে শুরু করেন । এসময় প্রধান শিক্ষক গৌতম বাবুর ঘরে   এসেই প্রশ্নপত্র ছিনিয়ে নেন, দেখা যায় অঙ্কের পরীক্ষায় দুটি ঘরে দুরকম প্রশ্নপত্র, সেই নিয়েই শুরু বচসা বাঁধে দুই শিক্ষকের মধ্যে।

বাইরে অপেক্ষায় তখন  আভভাবকরা কিছুই বুঝে ওঠতে পারেনি, কিছুক্ষণের মধ্যেই সেই খবর বুঝতে পারেন অপেক্ষায় থাকা অভিভাবকরা, এই ঘটনা আগে কোন প্রাথমিক স্কুলে কোনোদিন ঘটেনি। একই ক্লাসের দুরকম প্রশ্নের হবার কারনে স্কুলের অভিভাবক ও শিখকদের মধ্যেও বচসা শুরুহয়,পরে পরীক্ষাটি বাতিল করেন স্কুলের প্রাধান শিক্ষক কৃষ্ণকান্ত দাস।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক জানান সময়মত অঙ্কের শিক্ষক প্রশ্নপত্র স্কুলে জমাদেননি, সেই কারনে তিনি নিজের প্রশ্নপত্র দিয়েছেন অন্য দিকে অঙ্কের শিক্ষক নিজের প্রশ্নপত্র দিয়েছেন তাই এই সমস্যা, আগামী দিনে এই পরীক্ষা নেওয়া হবে।

No comments