Header Ads

‘Sickular’ has been coined for such category of hypocrites যে ভাবে লালু প্রসাদের মত লোকেরা'সেকুলার' শব্দকে 'বিকৃত' করছে


 

বিহারের মুখ্যমন্ত্রির চেয়ার থেকে পদত্যাগ করে নিতিশ কুমার বিজেপি জোটে যোগ দিয়ে ফের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার জন্য অনেকেই বলে থাকেন 26 জুলাই ভারতের একটি বড় রাজনৈতিক নাটকের সাক্ষী ।  এর ফলে প্রকাশ্যে প্রকাশ হয় যে, ভারতে কি করে রাজনৈতিক স্বার্থপরতা ও দুর্নীতির মাধ্যমে ধর্মনিরপেক্ষতাকে কিভাবে হাইজ্যাক করা হয়েছে। ধর্মনিরপেক্ষতা সরকারী প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ধর্ম এবং ধর্মীয় পরিচয়ের রাজনীতিবিদদের পৃথকীকরণের নীতিমালা তৈরি হয় স্রেফ স্বার্থের জন্য।  ভারতে ধর্মনিরপেক্ষতার অর্থ সম্পূর্ণভাবে বিভিন্ন রাজনীতিবিদদের দ্বারা তৈরি উপহাস মাত্র।

 

 যারা খোলাখুলিভাবে মসজিদ থেকে মুসলিম মৌলবাদীদেরকে উপহাস করে এবং সরকারী তহবিল ব্যবহার করে তাদের খুশি করে।এবং লালু প্রসাদের মত লোকেরা'সেকুলার' শব্দকে 'বিকৃত' করে।  বিহারের রাজনীতিতে লালু যাদব ও মুসলমান সমাজে বর্ণের ভোট ব্যাংকগুলি গড়ে তুলেছে।  শাহবাদ্দিনের মত মৌলবাদী প্রচারক ও দস্যুদের সাথে আলাদা করে তিনি মুসলমানদের 'মেসিয়াহ' হিসেবে নিজেকে তুলে ধরেন। অথচ ভারতীয় মুসলমানদের দারিদ্র্য ও পশ্চাদপদতার মূল কারণ এবং সমাধানের কথা লালুর মতো সেকুলাররা কখনোই বলেনি। মূলত উন্নত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে চ্যালেঞ্জ করে এবং দরিদ্র মাদ্রাসা শিক্ষাকে প্রশ্রয় দিলেও মাদ্রাসা শিক্ষার মানের উন্নয়ন না করে কার্যত মুসলমানদের পবিত্র গ্রন্থ কোরান বিকাশের প্রতিবাদ করে।  ফলে আধুনিক জ্ঞান অনুপস্থিতিতে, মাদ্রাসা স্নাতকেরা তাদের বস্তুগত সমৃদ্ধি উন্নত করতে এবং সমসাময়িক সমাজের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে অক্ষম। 

 

 

 

হক্কানিয়া মাদ্রাসার মাওলানা সামিউল হক এ প্রসঙ্গে বলেন, "তরুণ চিন্তা ভাবনার জন্য নয়। আমরা তাদের মাদ্রাসার জন্য যখন তারা অল্প বয়স্ক ছেলেমেয়েদের ধরতে পারি, এবং যখন তারা যথেষ্ট বয়সী হয় তখন তারা কি ভাববে। " লালুর মতো সিকুরিলেস কখনোই মুসলমানদেরকে সঠিক স্কুলে পড়তে দেবেন না, কারণ শিক্ষিত মুসলমানরা সহজেই এই বিকৃত সেকুলারিজম সহজেই বুঝতে পারে। অনেকগুলি অশিক্ষিত বা মাদ্রাসা ব্র্যান্ডের মুসলমানরা লালু ও তার সহকর্মীকে বিয়ে করে কারণ বিজেপি ও হিন্দুদের ভয় দেখানোর মাধ্যমে এই মুসলিমরা সহজেই দলগুলোর জন্য ভোট ব্যাংকে পরিণত হতে পারে।  লালু রাজ্যে বিপুলসংখ্যক খামার বাড়ি, জমি অধিগ্রহণ, কোম্পানি ইত্যাদি তার পরিবারে তার অশিক্ষিত স্ত্রী এবং 9 জন সন্তান তৈরি করেছে ।সাত মেয়ে এবং দুই ছেলে তেজস্বী প্রসাদ যাদব ও তেজ প্রতাপ যাদব স্কুল ছেড়ে চলে গেছেন। লালুকে আদালত দোষী সাব্যস্ত করে বিহারের চারদিকের কোটি কোটি কোটি টাকার দুর্নীতির জন্য। 1997 সালে 135 দিনের কারাদণ্ডে লালুপ্রসাদ যাদবকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয় তবে তাঁর কারাবাসের আগে লালু তাঁর অশিক্ষিত স্ত্রী রাবরী দেবীকে মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসিয়ে দিয়ে যায়। লালু কারাগারে পাঁচ তারা হোটেলের সুবিধা পেয়েছিলেন এবং পরে সহজেই জামিন পেয়ে যান। 

 

 

 সিবিআইয়ের একটি বিশেষ আদালতে অক্টোবর ২013 সালে তাঁকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়। কারাগারে থাকার পরিবর্তে, তিনি আবার জামিনে বেরিয়েছেন, রাজনীতিতে তাঁর বংশের সমৃদ্ধি ও প্রতিষ্ঠা করেছেন।  ব্যক্তিগত লাভের জন্য দারুণ দুর্নীতি ও অপব্যবহারের অভিযোগে লালু প্রসাদ ছিলেন সবার আগে।  ভারতে রাজনীতিতে এই পদগুলি এমন যে আদালত মামলাগুলি ২0-30 বছর ধরে টেনে আনবে। রাজনীতিবিদ মারা যাবে কিন্তু আদালতের কার্যক্রম তখনও মুলতুবি হবে না।  ক্লাসিক উদাহরণ হল জয়ললিতা, তার বিরুদ্ধে আদালত মামলাগুলি 1996 সাল থেকে অব্যাহত ছিল, তবে তার মৃত্যুর পর 2017 সালে চূড়ান্ত রায়টি পাস করা হয়।  

 

বিহারের প্রাক্তন উপমহাপরিদর্শক তেজস্বী প্রসাদ ২008-২01২ সাল থেকে 4 বছর ধরে আইপিএল ক্রিকেট দল, দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের সদস্য ছিলেন।  এই চার বছর ধরে, তেজস্বী একটি দিল্লি ডেয়ারডেভিলস জন্য একটিও না খেলেন নি ।  দিল্লি ডেয়ারডেভিলস জিএমআর গ্রুপের মালিকানাধীন। এই ব্যবসার ঘর তদন্ত করা উচিত, কি হিসাবে এই বিরক্তিকর ক্রিকেটার, যা 4 ঋতু সময় এমনকি একটি খেলা খেলতে সক্ষম ছিল না একটানা ধারণার জন্য বাধ্যকারী কারণ ছিল।  তেজস্বীকে দেওয়া আর্থিক সুবিধা কি ছিল? জিএমআর গ্রুপ দিল্লি ডেয়ারডেভিলস দলের ছেলেকে লালন পালনের জন্য বিনিময়ের বিনিময়ে লালুয়া যাদবের কাছ থেকে কি রেহাই পেয়েছে? এই গুরুতর সমস্যা এবং আরও তদন্ত প্রয়োজন।  

 

লালু যাদব, মুসলমানদের 'আত্মবিশ্বাসী' অভিভাবক এবং ভারতীয় বিরোধীদলীয় রাজনৈতিক দলের অধিনায়ক, তথাকথিত ধর্মনিরপেক্ষ বাহিনী গঠিত কিন্তু প্রকৃতপক্ষে 'বিকৃত ফোরস'।  লালু ও তার পরিবারকে অন্তত ন্যূনতম 10 বছরের কারাদণ্ড দেওয়া উচিত যাতে জামিনে জামিন না দেওয়া এবং কঠোর পরিশ্রমের বিধান জেলের মধ্যে করা উচিত।  লালুর রাজ্যের বাসিন্দা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং লালকৃষ্ণ আদবানিরা গোপনে বড়ো হতে দিচ্ছে ।







26 July witnessed a big political drama in India, when Nitish Kumar, the C.M. of Bihar submitted his resignation. He was back in the C.M’s chair, the very next day due to the support extended to his party, JD (U) by BJP to form the government in Bihar.
The purpose of this write-up is not to analyze the political merits and demerits of the aforesaid theatrics but to reveal how secularism has been hijacked by political selfishness and corruption in India.
Secularism implies the principle of separating government institutions as well as politicians from religion and religious figures.
In India the meaning of secularism has entirely been altered by various politicians, who openly woo Muslim fundamentalists from Mosques and waste government funds in order to appease them.
The term ‘Sickular’ has been coined for such category of hypocrites.
Lalu Yadav, a widely known self-proclaimed secular politician of the country, is in fact a big-time ‘sickular.’
Lalu keeps on harping upon keeping Muslims safe in Bihar. Maintenance of law and order is the foremost task of any elected government, what’s the big deal in it?
Lalu’s politics involves developing vote banks from his caste comprising of Yadavs and Muslims.
He portrays himself as the ‘messiah’ of Muslims by aligning with fundamentalist Muslim preachers and gangsters like Shahbuddin.
Sickulars like Lalu never address the root cause of poverty and backwardness among Indian Muslims.
It is largely due to the community shunning of mainstream educational institutes and going to worthless madrasas, (Muslim religious schools) which primarily focus on students, rote learning of the Muslim holy book; Koran.
In the absence of modern knowledge, madrasa graduates are unable to improve their material prosperity and face the challenges of contemporary society.
The Ulemas or the Islamic scholars’ regressive attitude is reflected in the following statement of Maulana Samiul Haq, of the Haqqania madrasa, a prominent Deobandi madrasa;
“Young minds are not for thinking. We catch them for the madrasas when they are young, and by the time they are old enough to think, they know what to think”
Sickulars like Lalu would never tell Muslims to study in proper schools because, an educated Muslim can easily decipher the tricks played by these sickulars.
A large number of illiterate or madrasa brand Muslims suit Lalu and his fellow sickulars because then by showing the fear of BJP and Hindus, these Muslims can be easily turned into vote banks for sickular parties.
CBI, ED and other government agencies recently conducted large number of raids on Lalu and his family. They discovered Billions amassed by this so called ‘champion of oppressed ’.
Lalu accumulated large number of farm-houses, land holdings, companies etc. in the name of his family comprising of his illiterate wife and 9 children; 7 daughters and 2 sons.
Both his sons, Tejashwi Prasad Yadav and Tej Pratap Yadav are school drop-outs. The former was the deputy CM of Bihar with various ministerial portfolios, while the latter was the Health Minister of the province till last week.
Lalu was declared guilty by the courts for his lead role in the Bihar fodder scam worth thousands of Crores. Lalu Yadav was jailed for 135 days in 1997 but he was lodged in a Bihar Military Police guest house with all comforts.
Before his incarceration, Lalu installed his uneducated wife Rabri Devi as the C.M. of Bihar. Lalu was jailed on various other occasions for his involvement in the aforementioned swindle.
Every time, Lalu was put in prison, he received 5 star hotel facilities and got bail easily. Lalu continued being the de facto C.M of Bihar by inducting his wife as the rubber- stamp C.M. of Bihar.
He was finally sentenced to a 5 year jail term in October 2013 by a special CBI court. Instead of being in a jail, he is again out on bail, busy in enriching and establishing his progeny in politics.
Lalu is saying that he and his family are being victimized. These utterances constitute ‘heights of shamelessness’.






Lalu indulged in blatant corruption and misuse of office for personal gains. On getting exposed he started parroting; this is a conspiracy of BJP and law would take its own course.
These terms in India mean that court cases would drag for 20-30 years. The politician will die but the court proceedings would still remain pending.
Classic example is Jayalalitha, the court cases against her were continuing since, 1996 but the final judgment was passed in 2017 after her death.
Lalu’s son, Tejashwi Prasad, the Ex-Deputy C.M of Bihar was a member of IPL cricket team, Delhi Daredevils for 4 years from 2008-2012.
During these 4 years, Tejashwi didn’t play a single game for Delhi Daredevils.
Which sporting team in the world would keep such a useless player in its squad?
Delhi Daredevils is owned by GMR group. This business house must be investigated, as to what were the compelling reasons behind continuous retention of this trash cricketer, who wasn’t competent to play even a single game during 4 seasons.
What were the financial benefits given to Tejashwi? Did the GMR group receive concessions from Lalu Yadav in exchange for keeping his son in Delhi Daredevils team? These are serious issues and need further investigations.
Misa Bharti, eldest daughter of Lalu Yadav is a Rajya Sabha M.P. She topped the MBBS examination of Patna Medical College Hospital during the late 90’s.
Misa never excelled in her classes, either at school or college. At her convocation, the presenter of the degree requested her not to treat any patients ever.
Lalu through his clout in Bihar first got her admission into MBBS and then deceptively made her a topper.
Misa Bharti after topping her MBBS studies and obtaining her medical degree did not work as a Doctor even for a single day, neither did she start her own medical practice.
This is humbug Lalu Yadav, the ‘self- styled’ protector of Muslims and skipper of the Indian opposition political parties, comprising of so called secular forces but in reality ‘sickular phorses’.
Lalu and his family should be imprisoned for at least a minimum period of 10 years with provisions of no bail plus hard labor in the jail.
All undeclared properties; including land parcels, bank accounts, commercial businesses, residences etc. unearthed by the authorities during raids on Lalu and his family must be confiscated by the central government.
Lalu’s party RJD, which is nothing more than a corrupt family enterprise should be disbanded and a life ban imposed on Lalu plus his clan from pursuing political careers.
An exemplary example needs to be made of this corrupt, sickular Lalu so, as to deter other existing as well as budding ‘Lalu Prasad Yadavs’, abounding in the Indian political system from Kashmir to Kanyakumari.


Sources:
1. http://indiatoday.intoday.in/story/bihar-nitish-kumar-governor-tejashwi-yadav/1/1011548.html
2. http://www.indialivetoday.com/arnab-goswami-exposes-jailed-mafia-don-shahabuddin-lalu-yadav-nexus-first-exclusive-republictv-bihar/154950.html
3. http://www.southasiaanalysis.org/node/1663
4. http://www.india.com/news/india/ed-to-tighten-noose-on-lalu-prasad-yadav-family-members-after-cbi-raids-2303171/
5. http://www.dailymail.co.uk/indiahome/indianews/article-4601304/Income-tax-dep-probe-Lalu-s-alleged-nameless-properties.html
6. http://www.thehindu.com/news/national/other-states/lalus-sons-start-off-with-key-portfolios/article7900863.ece# !
7. https://en.wikipedia.org/wiki/Fodder_Scam
8. http://indiatoday.intoday.in/story/fodder-scam-rjd-chief-lalu-prasad-sentencing-videoconferencing/1/312821.html
9. http://www.asianage.com/india/politics/150217/supreme-court-jails-sasikala-for-4-years-in-da-case.html
10. http://archive.indianexpress.com/news/for-lalus-son-ipl-is-money-for-nothing/929726/
11. http://timesofindia.indiatimes.com/city/patna/Lalus-son-has-violated-IPL-rules-Shekhar-Suman/articleshow/4436888.cms
12. http://www.newindianexpress.com/nation/2017/jul/11/tej-tejashwi-and-misa-heres-all-you-need-to-know-about-lalus-children-1627350.html
13. http://www.bihartimes.in/articles/nalin/laloo_ladla.html
14. https://en.wikipedia.org/wiki/Misa_Bharti

No comments