Header Ads

লাইনে কাজ চলছিল, স্টেশন কর্তা জানতেনই না!‌Muzaffarpur train accident tragedy story





স্রেফ গাফিলতির কারণে, মানুষের ভুলেই এতবড় একটা দুর্ঘটনা ঘটে গেল!‌ উত্তরপ্রদেশের মুজফ্ফরপুরে খতৌলি স্টেশনের কাছে কালকের ট্রেন দুর্ঘটনার ব্যাপারে প্রাথমিক খোঁজখবরে তেমন তথ্যই বেরিয়ে আসছে। লাইন মেরামতের কাজ চলছিল ওই জায়গায়। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে গিয়ে রেল বোর্ডের সদস্য (‌ট্রাফিক)‌ মহম্মদ জামশেদও দেখেছেন, কিছু যন্ত্রপাতি পড়ে আছে পাশেই। ‘‌লাইন সারানোর কাজ চলছিল। হতে পারে সে–কারণেই দুর্ঘটনা ঘটেছে’‌, সাংবাদিকদের বলেন জামশেদ। একটি অডিও ক্লিপও পাওয়া গেছে, যাতে কথাবার্তা থেকে মনে হচ্ছে, লাইনে কাজ হচ্ছিল। প্রশ্ন, লাইন সারানো হচ্ছে, সে–খবর স্টেশন কর্তাদের কাছে ছিল না?‌ রেলের চালককে সেই বার্তা দেওয়া হয়নি?‌ প্রসঙ্গত, ঘণ্টায় ১০৬ কিলোমিটার বেগে ছুটছিল ওই সময় পুরী–‌হরিদ্বার উৎকল এক্সপ্রেস। 
ইঞ্জিনিয়ারিং ডিভিশনের একটি সূত্র জানায়, খতৌলি স্টেশনকে জানানো হয়েছিল। মিনিট কুড়ি ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার কথা ছিল। কাজ শুরু হওয়ার আগেও দুটি ট্রেন গতি কমিয়ে এই লাইন ধরে গিয়েছিল। খতৌলির স্টেশন সুপার রাজিন্দর সিং কিন্তু বেমালুম অস্বীকার করলেন। বলেন, লাইনে কোথাও সমস্যা আছে, এমন খবর আমাদের কাছে ছিল না।
সত্যিটা তা হলে কী?‌ রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভুর নির্দেশ, কার জন্য এমন দুর্ঘটনা ঘটল, প্রাথমিকভাবে তা ঠিক করতে হবে আজকের মধ্যেই। এফআইআর করা হয়েছে। ৩০৪এ ধারায়। গাফিলতির কারণে মৃত্যু সংক্রান্ত ধারা এটি। অজানা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ আনা হয়েছে। দুর্ঘটনার কারণ খুঁজতে বিশদে তদন্ত শুরু করছে রেলের সুরক্ষা কমিশন। উত্তর রেলের সুরক্ষা কমিশনারের নেতৃত্বে কাল থেকে কাজ শুরু হবে। রেল বোর্ডের সদস্য মহম্মদ জামশেদ বলেন, ‘‌রেলমন্ত্রীর নির্দেশ মেনে দুর্ঘটনায় কারও গাফিলতি প্রমাণিত হবে তার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কারণ, রেলের প্রতিটি কাজের লিখিত বিবরণী থাকে। তা দেখলেই বোঝা যাবে নিয়ম ভাঙা হয়েছিল কি না, ওই লাইনে মেরামতির দায়িত্ব কার ছিল এবং কেন এই দুর্ঘটনা ঘটল। তদন্তে আরও দেখা হবে, ওই সময়ে ট্র‌্যাকে ঠিক কী ধরনের মেরামতি চলছিল।’‌ উত্তর রেলের জেনারেল ম্যানেজার রাজীব কুমার রবিবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ট্র‌্যাকে ছোটখাটো কোনও কাজের জন্যও দুর্ঘটনা ঘটে থাকলে দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওযা হবে। কারণ রেলের কাছে যাত্রী–সুরক্ষাই সর্বাগ্রে।
কালকের দুর্ঘটনায় ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। ৯২ জন জখম হয়েছেন। লাইন থেকে ছিটকে গিয়েছিল ১৩টি কামরা। ৬টি খুব বেশি ক্ষতিগ্রস্ত। একটি পাশের একটি বাড়িতে গিয়ে ধাক্কা দেয়। দুর্ঘটনাগ্রস্ত কামরাগুলি সরাতে কাজে লাগানো হয়েছে ১৪০ টন ওজনের দুটি ক্রেন। আজ রাতেই লাইন পরিষ্কার হয়ে যাবে।  রেলমন্ত্রী মৃতদের পরিবারপিছু সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন। গুরুতর জখমদের ৫০ হাজার করে এবং অল্প জখমদের ২৫ হাজার টাকা দেবে রেল। ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক মৃতদের পরিবারপিছু ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন।      
সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির অভিযোগ, এই দুর্ঘটনা সম্পূর্ণ ম্যানমেড। পুরো ঘটনায় রেলের গাফিলতিই সামনে এসেছে। কারণ, চালককে ট্র‌্যাক মেরামতি সম্পর্কে অবগত করেননি রেলকর্মীরা। তাঁর কটাক্ষ, কেন্দ্রীয় সরকার অন্যান্য খাতে প্রচুর ব্যয় করলেও রেলযাত্রীদের সুরক্ষা নিয়ে মাথা ঘামান না। লোকসভার বিরোধী দলনেতা তথা প্রাক্তন রেলমন্ত্রী মল্লিকার্জুন খাড়গে বলেছেন, রেল দাবি করছে তাদের প্রচুর অর্থ আছে। টিকিটের দাম বেড়েছে। ওয়েটিং টিকিটের দামও বাড়ানো হয়েছে। অথচ রেলের নিরাপত্তায় বিরাট ফাঁক।

সুত্র : আজকাল


Just because of the neglect, people have forgotten that such a tragedy happened in the first investigation of yesterday's train accident near Khatauli station in Muzaffarpur in Uttar Pradesh. The line repair work was going on in that place. While traveling to the spot, Railway Board Member (Traffic) Mohammad Jamshed also noticed that there are some equipment left behind. 'Line repair work was going on. Maybe that happened due to the accident ', told journalists Jamshed said. An audio clip was also found, so that the conversation seems to be working on the line. The question was that the line was being repaired, was not it to the station officials, and the train driver was not given the message? In the meantime, Puri-Haridwar Eucul Express was running at 106 kilometers per hour.A source in the Engineering Division said that Khatauli station was informed. Twenty-two train trains were about to be closed. Even before the start of the work, this line was reduced by reducing the speed of two trains. Khattauli Station Superintendent Rajinder Singh denied the allegation. We did not have any news that there was a problem in the line.What is the truth? Railway Minister Suresh instructed the Lord, for whom such an accident happened, initially it should be decided today. FIR has been filed. In this section 304. Due to the neglect, it is related to death clauses. The accused have been charged with defamation. Railway Security Commission starts investigating in detail to find out the cause of the accident Work will be started from time to time under the Northern Railway's Security Commissioner. Railway Board member Mohammed Jamshed said, "A strict action will be taken against anyone who is proved wrong by the order of the railway minister. Because, there is a written statement of every work in the railway. Seeing it, it can be understood whether the rule was broken, who was responsible for repairing the line and why this accident happened. In the investigation, what kind of repair was being done at that time. "General Manager of Northern Railway, Rajiv Kumar, said on Sunday that strict action will be taken against the culprits if there is an accident for any small work in the truck. Because passenger-safety is the front of the railroad.23 people died in yesterday's accident 92 were wounded. The 13 rooms that were leaked out of the line 6 are very damaged Pushed to a side of a house. Two cranes weighing 140 tons have been used to remove the accidental rooms. The line will be cleaned tonight. Railway Minister announced compensation of Rs 3.50 lakhs to the dead family. Railway will provide 50 thousand and 25 injured for the minor wounded. Odisha Chief Minister Naveen Patnaik announced the compensation of five lakh rupees to the family of the deceased.CPM general secretary Sitaram Yechury alleged that the accident was completely manned. On the whole incident, the railing has come to the forefront. Because, the staff did not inform the driver about the track repair. His insincerity, but central government does not bother about the safety of the passengers even if it costs a lot in other areas. Former Leader of the Opposition and former Railway Minister Mallikarjun Kharge said that the Railways demanded that they have a lot of money. Ticket prices increased Waiting ticket price has also been increased. But the big gap in the safety of the railway.

No comments