Header Ads

দেখুন : আফ্রিকার গভীর জঙ্গলের বাবন তান্ডব করছে বাংলার গ্রামে African and Arabian animal Baboon In the village of West Bengal




আফ্রিকার গভীর জঙ্গলের বাবন তান্ডব করছে বাংলার গ্রামে গ্রামে।গত চারমাস ধরে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার জয়নগরে


দীর্ঘ  চার মাস দাপিয়ে বেড়িয়েছে। গত চার মাস ধরে জয়নগর পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের মানুষদের অতিষ্ট করে তুলেছিল বানর আকৃতির পশু বাবন।হঠাত ঘরে ঢুকে ফ্রিজ খুলে খাবার খাচ্ছিল আবার কখনও  কোন বাড়ীর জলের ট্যাব খুলে স্নান করত বাবন ।বাঁধা দিলেই হয় সজোরে থাপ্পড় অথবা আঁচড়ে কামড়ে  দিত।

বাবনের বিরুদ্ধে এমন হাজারো অভিযোগে জেরবার বনদপ্তর।


বনদফতর জানিয়েছে , বানর আকৃতির প্রাণীটার নাম বাবন।আফ্রিকার গভীর জঙ্গলে এদের বাসস্থান হলেও আফ্রিকা ও আরব দেশে এদের দেখা যায়। বিশ্বের প্রাচীন তম লুপ্তপ্রায় বানর হল বাবন।কিন্তু কিভাবে দক্ষিন ২৪ পরগনার জয়নগরে এল বেবুন । তা ভেবে পাচ্ছেনা বনদপ্তর। ২015 সালে গবেষকেরা ২ মিলিয়ন বছর আগে প্রাচীনতম বাবুর জীবাশ্মকে আবিষ্কার করেছিলেন


তবে দফায় দফায় এলাকার মানুষের অভিযোগের ভিত্তিতে দিনের পর দিন বনকর্মীরা খাবারের টোপ দিয়ে খাঁচা পেতে ধরতে ব্যর্থ হয়।


শুক্রবার রাতে জয়নগরের ৫নং ওয়ার্ডএর বাসিন্দা মকসুদ রহমান লস্করের বাড়ীতে হটাতই ঢুকে পড়ে বাবন।সাথে সাথে বাড়ীর লোকজন ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়।এরপর  ঘরের মধ্যে থাকা টিভি ও অন্যান্য জিনিস ওলট পালট করতে থাকে সে। খবর দেওয়া হয় জয়নগর থানায় এবং বনদপ্তরকে। গভীর রাতে বনকর্মীরা তাকে ঘুম পাড়ানি ওষুধ গুলি করে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।দীর্ঘদিনের ত্রাস এই বাবন ধরা পড়ায় খুশী এলাকার মানুষ।



For the last four months, Jaynagar municipality has been able to clean the monkey-shaped animals Baboon in the wards of the people of the ward. Sitting in the house, eating the fridge and eating it, and sometimes bathing in the water of the house, bathing it.

The monastery is said to be the name of the monkey-shaped creature Baboon. They have their habitat in the deep forest of Africa, but they are found in Africa and Arab countries. The world's oldest monkey is full of Baboon. But how do Jeuneagar this Babun in South 24 Parganas? The forest department is not able to see it. In 2015 researchers discovered the oldest Baboons fossils 2 million years ago.

However, on the basis of allegations of the people of the area, forest workers failed to get a cage after day food bait.

On Friday night, a resident of Ward no. 5 of Joynagar, suddenly entered the house of Laksar. After that, the people of the house closed the doors of the house. Then he kept changing the TV and other things in the house. The news was given to Jaynagar Police Station and the Directorate of Forests In the deep night, forest workers rescued him by shooting his sleeping pills. The people of the happy area were caught in the forest for a long time.

No comments