Header Ads

গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে খুন



বাপের বাড়ী থেকে চাহিদা মতন টাকা আনতে না পারায় এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে খুন করার অভিযোগ উঠলো স্বামী ও তার শ্বশুর বাড়ীর বিরুদ্ধে।ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার ধানতলা থানার পাঁচবেড়িয়ায়।মৃত গৃহবধূর নাম রুম্পা ভক্ত।নদিয়ার চাকদহ থানার শিমুৱালী এনায়েতপুর এলাকার বাসিন্দা রুম্পার চার বছর আগে বিবাহ হয় ধানতলা থানার পাঁচবেড়িয়া কলোনির বাসিন্দা পেশায় বেসরকারি সংস্থার কর্মী রাকেশ ভক্তের সাথে।অভিযোগ,বিয়ের পর থেকেই বাপের বাড়ী থেকে বিভিন্ন সময় টাকা আনার জন্য রুম্পাকে চাপ দিত তার স্বামী ও শ্বশুর বাড়ীর লোকজন।টাকা না আনলে চলত মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার।অভিযোগ,সম্প্রতি বেশ কয়েক হাজার টাকা বাপের বাড়ী থেকে নিয়ে আসার জন্য রুম্পাকে চাপ দিচ্ছিল স্বামী রাকেশ , শ্বশুর শ্বাশুড়ী ও ননদ।সেই টাকা আনতে অস্বীকার করে রুম্পা।অভিযোগ তার পরই শনিবার রাতে রুম্পাকে মারধর করে ও গলা টিপে খুন করে ঝুলিয়ে দেয়।খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে মেয়েকে মৃত অবস্থায় দেখে ধানতলা থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।ঘটনায় ধানতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন রুম্পার বাপের বাড়ীর লোকজন।অভিযোগের ভিত্তিতে রুম্পার স্বামী রাকেশ ভক্ত ও তার ভগ্নিপতি গোপাল দাসকে গ্রেফতার করেছে ধানতলা থানার পুলিশ।ঘটনায় অন্য অভিযুক্ত রুম্পার শ্বশুর,শ্বাশুড়ী ও ননদ ঘটনার পর থেকে পলাতক।তাদের সন্ধান শুরু করেছে ধানতলা থানার পুলিশ।

No comments